‘কবির ঘোষ’ দুধ বিক্রি করেই মাসে আয় করেন ৪০ হাজার টাকা!

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার ৬৯ বছর বয়সী মো. কবিরুল ইসলাম কবির দুধ বিক্রি করে মাসে ৩০-৪০ হাজার টাকা আয় করেন।

উপজেলার মানুষ তাকে ‘কবীর ঘোষ’ নামেই চেনেন। সে উপজেলার ছত্রজিতপুর ইউনিয়নের বহলা বাড়ির মাজেদ আলীর ছেলে।

তার বাবা মাজেদও একজন দুধ ব্যবসায়ী ছিলেন।

সংসারের অভাবের কারণে মাত্র ১৪ বছর বয়সে সংসার সামলাতে হয় কবিরুলকে। এরপর থেকে তিনি দুধ বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করছেন।

কবির ঘোষ এখন ব্যাটারি চালিত মোটরসাইকেল দিয়ে ঘরে ঘরে দুধ সংগ্রহ করে হাট-বাজারসহ বিভিন্ন বাড়িতে সরবরাহ করছেন।

৫ সদস্যের পরিবারে স্ত্রী ছাড়াও তার ৩ ছেলে রয়েছে। বড় ছেলে কাপড় ব্যবসায়ী, ছোট ছেলে প্রবাসী এবং বড় ছেলে বাবা।

কবিরুল ইসলাম বলেন, আমার লেখাপড়ার খরচ চালানোর সামর্থ্য আমার পরিবারের ছিল না, তাই উপার্জনের পথ বেছে নিতে হয়েছে।

সেই থেকে দুধের ব্যবসা করছি। আয় কম হলেও কাজের পরিবর্তন হয়নি। এটাই জীবনের শুরু।

এ ব্যবসা থেকে উপার্জিত অর্থ দিয়ে ২০১৩ সালে কবিরুল ও তার স্ত্রী একসঙ্গে হজ করেন।

দীর্ঘদিন সাইকেলে করে দুধ সরবরাহ করলেও এখন মানুষের জীবনযাত্রার উন্নতির সাথে সাথে তার যাতায়াতের মাধ্যমও পাল্টেছে। একটি ব্যাটারি চালিত মোটরসাইকেল * EasyBike 20,000 টাকায় কিনুন। প্রতিদিন তিন থেকে চার মণ দুধ সংগ্রহ করে বিক্রি করছেন তিনি।

শিবগঞ্জ বাজারের দোকানদার রিকো জানান, তিনি ১০ বছর ধরে কবিরুলের দুধ দিয়ে মিষ্টি জাতীয় খাবার তৈরি করে আসছেন।

বর্তমানে রমজান মাস থাকায় বিক্রি কমে গেছে। তবে কবিরুলের দুধে কখনই ভেজাল ছিল না। তার দুধ দিয়ে তৈরি খাবার অনেকদিন রাখা যায়। দুধের ব্যবসা করে সততার সাথে সংসার চালান তিনি।

কবিরুল ইসলাম বলেন, যতদিন সুস্থ থাকবেন ততদিন এই ব্যবসা চালিয়ে যাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *