চাকরির প্রস্তুতিঃ উক্তি (বিসিএসে এইখান থেকে ১৪টি প্রশ্ন এসেছে)

1. ‘কাঁদতে আসিনি, ফাঁসির দাবি নিয়ে এসেছি’ মাহবুব উল আলম চৌধুরী

“হাওয়ায় লাশের গন্ধ ভাসে” – রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ
3. ‘বামন চিনি পইতা প্রমান বামনি চিনি কিসে রে।’ – লালন ফকির

“সাহিত্য জাতির দর্পণ” – প্রমথ চৌধুরী!
“সুশিক্ষিত লোকেরাই কেবল স্ব-শিক্ষিত” – প্রমথ চৌধুরী
6. “মানুষের প্রতি বিশ্বাস হারানো পাপ” – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

“আসাদের শার্ট আজ আমাদের জীবনের পতাকা।” – শামসুর রাহমান।
সুকান্ত ভট্টাচার্য- ‘ক্ষুধার রাজ্য, পৃথিবীর সমৃদ্ধ চাঁদ, রুটি রুটির মতো’।
‘মন্ত্র সাধন বা শরীর শুদ্ধি’। -ভারতচন্দ্র।
“আমি সুখে বেঁচে আছি। রোদ, বৃষ্টি, ঝড়ের পরে তুমি কত কষ্ট পাও।” —রজনীকান্ত সেন।
11. “আপনি যদি এতই দ্বিধাগ্রস্ত হন তবে কেন জন্মগ্রহণ করেছিলেন?” – নির্মলেন্দু গুণ।

12. ‘আমি একা রক্ত ​​ঝরাতে পারি না, তাই এ রক্ত ​​লিখি’ – কাজী নজরুল ইসলাম।

“প্রণামিয়া পাটনি বলেছেন আমার সন্তানকে দুধ ও ভাত খেতে বাধ্য করুন” – ভারতচন্দ্র রায়গুণাকর।
“আমার কি একজন নাবিক দরকার?” ইমানিক বন্দ্যোপাধ্যায়, পদ্মা নদীর মাঝি”।
15. ‘হে সাত কোটি সন্তানের মুগ্ধ জননী, তুমি মানুষকে বাঙালী করোনি।’ – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

‘আমাকে বিপদ থেকে রক্ষা কর, নইলে আমার প্রার্থনা আমি যেন বিপদে ভয় না পাই’* *রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
17. ‘আমি বাংলার মুখ দেখেছি, তাই আর পৃথিবীর মুখ দেখতে চাই না’ – জীবনানন্দ দাস

“আমি যদি বন্য হংস হতাম তবে তুমি বন্য হংস হবে” – জীবানন্দ দাস।

“জ্ঞানী মহাজন, তুমি যে পথ ধরিয়াছ তাহা প্রভাতে স্মরণীয়।” * হেমচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়।
“আমাদের প্রত্যেকে, আমাদের প্রত্যেকে, পরবর্তী প্রজন্মের মধ্যে।” – কামিনী রায়।
‘সই, কি করে আমার বধূকে ধরি, গজ নিয়ে বাড়ি যাই।’-চণ্ডীদাস।
22. ‘রূপলাগী আখিঁ ঝুরে মন ভোর প্রতি আঙ লাগি কান্দে প্রতি আং মোর।’ * – চণ্ডীদাস।

“কুহেলী বেদিয়া, বসন্তের জড়তা ভেঙ্গেছে”* – সৈয়দ এমদাদ আলী।
“মানুষ মরলে পচে যায়, বেঁচে থাকলে বদলায়” – মুনীর চৌধুরী, রক্তাক্ত মরুভূমি।
‘হেরে গেলেও সাগর শুকিয়ে যায়’ * মুকুন্দরাম।

হে সুন্দরী, আমাকে সুন্দর জীবন দাও।
‘সেদিন মনের আনন্দে মোমবাতি জ্বলে’- কৃষ্ণচন্দ্র মজুমদার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *