মেয়েদের স্কুল বন্ধে আফগানিস্তানকে যে শাস্তি দিল বিশ্ব ব্যাংক

মেয়েদের স্কুল বন্ধে আফগানিস্তানকে যে শাস্তি দিল বিশ্ব ব্যাংক

মেয়েদের স্কুল বন্ধে আফগানিস্তানকে যে শাস্তি দিল বিশ্ব ব্যাংক

তালেবান সরকার মেয়েদের উচ্চ বিদ্যালয় বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়ার পর বিশ্বব্যাংক আফগানিস্তানে চারটি প্রকল্পের কাজ স্থগিত করেছে।

বিশ্বব্যাংক বলেছে, সমঅধিকারের গ্যারান্টি না দেওয়া এবং শর্ত লঙ্ঘনের কারণে ৮০ কোটি ডলারের প্রকল্পগুলো স্থগিত করা হয়েছে।

বিশ্বব্যাংক আফগানিস্তানের জনগণের জীবিকা, কৃষি, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নের জন্য দেশটির পুনর্গঠন তহবিলের (ARTF) অধীনে জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে চারটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। সম্প্রতি দেশে বালিকা বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণায় সবকিছু তছনছ হয়ে যায়।

তালেবান সরকারের পদক্ষেপে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্বব্যাংক। এই প্রকল্পগুলি মেয়েদের সম্পৃক্ততা এবং পুরুষদের জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করার শর্তযুক্ত ছিল।

বিশ্বব্যাংকের মতে, প্রকল্পগুলো তখনই অনুমোদন করা হবে যখন বিশ্বব্যাংক এবং তার আন্তর্জাতিক অংশীদাররা আফগানিস্তানের পরিস্থিতি সম্পর্কে ভালোভাবে অবগত থাকবে।

গত সপ্তাহে মেয়েদের স্কুল বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়ে দেশটির অর্থনৈতিক সংকটের কারণে কাতারের দোহায় একটি বৈঠক বাতিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এদিকে মার্কিন অধিকার কর্মীরা তালেবান সরকারের প্রতি সকলের জন্য স্কুল খোলার আহ্বান জানিয়েছেন। বুধবার তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকের পর তারা এ আহ্বান জানান।

এর আগে, তালেবান বলেছিল যে ইসলামিক আইন অনুসারে মেয়েদের ইউনিফর্মের বিষয়ে সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত তারা মেয়েদের জন্য স্কুল বন্ধ রাখবে, সেইসাথে স্কুলগুলি আবার খোলার পরিকল্পনা করছে। বিষয়টি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।
বিবিসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *