স্বামী-স্ত্রী রাব্বানী এবং নয়ন একসাথে হলেন বিসিএস ক্যাডা !

স্বামী-স্ত্রী রাব্বানী এবং নয়ন একসাথে হলেন বিসিএস ক্যাডার…!

স্বামী-স্ত্রী রাব্বানী এবং নয়ন একসাথে হলেন বিসিএস ক্যাডার…!

শেখ মোশতাক রব্বানী ও নয়ন তারা তৃপ্তি; তারা দুজনেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) পড়াশোনা করেছেন। ইতিমধ্যেই গাঁটছড়া বেঁধেছেন দুজন। তারা দুজনই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের ২০১০-১১ সেশনের শিক্ষার্থী। তাদের দুজনকেই ৩৬তম বিসিএসে শিক্ষা ক্যাডারে সুপারিশ করা হয়েছে।

শিক্ষা ক্যাডারে ইতিহাসে ১ম হয়েছেন স্বামী মোশতাক। আর স্ত্রী নয়ন তারা অষ্টম হয়েছেন। মোস্তাক রব্বানীর বাড়ি ফরিদপুর সদর উপজেলায়। আর পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার ‘নয়ন তারা’। বিশ্ববিদ্যালয়ের পর এবার তারা একসঙ্গে কাজ শুরু করেছেন।

তাদের সাফল্যের গল্প জানতে চাইলে শেখ মোস্তাক রব্বানী বলেন, “দেশের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ পরীক্ষায় পাস করার অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। তখন আমার স্ত্রীও বিসিএস ক্যাডার হয়ে আমার আনন্দকে বহুগুণে বাড়িয়ে দেন। টানা ৩/৪ বছর পরিশ্রমের পর এমন ফল পাওয়া খুবই ভালো। এমন একটি অর্জন পরিবারের জন্য এবং নিজের জন্য একটি বড় সম্মান। ”

শেখ মোশতাক রব্বানী এই দম্পতির সেরা দশে আসার পেছনের গল্পটি বলেছেন, “এই অর্জন সম্পূর্ণরূপে আমাদের বোঝার জন্য। আমরা সবসময় পড়াশোনায় একে অপরকে সহযোগিতা করেছি। অধ্যয়ন

একে অপরকে পড়তাম, আবার ধরতাম। এটি দিয়ে, আমরা যা ভুল হচ্ছিল তা সংশোধন করব।

মোশতাক রব্বানী দেশের শিক্ষায় কিছুটা হলেও অবদান রাখতে চান। তিনি বলেন, “পড়ার যে কোনো বিষয় নিয়ে আগে আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করতাম। আমার স্ত্রী কিছু না বুঝলে আমি বুঝিয়ে দিতাম। আবার, আমি কিছু না বুঝলে আমাকে বুঝিয়ে বলতেন।

আমি 1টি বিষয় নির্বাচন করে এটি শেষ করব। তখন আমরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা করতাম যে আমি সে সম্পর্কে কত তথ্য পেয়েছি। আমরা কখনই বই কিনতাম না। দু’জনে দু’রকমের বই কিনতেন। ফলস্বরূপ, আমি দুটি নতুন তথ্য পেয়েছি।

একে অপরের সাথে শেয়ার করতাম।

সৌজন্যেঃ ডেইলি ক্যাম্পাস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *