হঠাৎ হার্ট অ্যাটাক হলে কী করবেন

হুট করেই হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু। এমন আকস্মিক হৃদরোগে মৃত্যুর খবর প্রায়ই শোনা যায় আশপাশে। হঠাৎ কার্ডিয়াক অ্যারেস্টকে মুভি হার্ট অ্যাটাক বলা হয়। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই হার্ট অ্যাটাকের আগে শরীর সংকেত পাঠায়। প্রথমে বুকে হালকা ব্যাথা সহ অস্বস্তি হয়। হার্ট অ্যাটাকের বেশিরভাগ সময় বুকের মাঝখানে চাপ অনুভূত হয়। ব্যথা কয়েক মিনিট স্থায়ী হয়। কখনও কখনও ব্যথা চলে যায় এবং আবার ফিরে আসে।

একটি অস্বস্তিকর চাপ এবং ঝাঁকুনি অনুভূত হয়। প্রায়শই পিছনে, ঘাড়, চোয়াল এবং পেটে অস্বস্তি হয়। বুকে অস্বস্তি সহ শ্বাসকষ্ট। ঘাম ঠান্ডা লাগা এবং বমি বমি ভাব হতে পারে।

লক্ষণগুলো বুঝে দ্রুত ব্যবস্থা নিলে বড় ক্ষতি এড়ানো যায়। মূলত, হার্ট অ্যাটাক হয় যখন হৃৎপিণ্ড অপর্যাপ্ত এবং অনিয়মিতভাবে সঞ্চালন করে। উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, ধূমপান, অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন, মানসিক চাপ সহ বিভিন্ন কারণে হার্ট অ্যাটাক হতে পারে।

হঠাৎ হার্ট অ্যাটাক হলে ভয় পাবেন না। জোরে ও ঘন ঘন কাশি দেয়া, যাতে কাশির সাথে কফ বের হয়। প্রতিবার কাশির আগে দীর্ঘশ্বাস ফেলুন। এইভাবে ঘন ঘন কাশি এবং দীর্ঘশ্বাস – প্রতি দুই মিনিট পরপর। এতে করে আপনার হৃৎপিণ্ড একটু হলেও নিয়মিত রক্ত ​​সঞ্চালন করবে। এটি রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগে তাকে অনেক সহায়তা দেবে। এর কারণ হল দীর্ঘশ্বাস আমাদের শরীরে অক্সিজেনের পরিবহণ বাড়ায় এবং বুকের উপর ঘন ঘন কাশির ফলে চাপ পড়ে হার্টকে পর্যাপ্ত ও নিয়মিত রক্ত ​​সঞ্চালনের জন্য প্রস্তুত করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *