Admin Cadre রেজোয়ান: “কখনো মোবাইল ব্যবহার করেননি, ক্যডার হয়ে বেতন পেয়েই কেনেন মোবাইল”

Admin Cadre রেজোয়ান: “কখনো মোবাইল ব্যবহার করেননি, ক্যডার হয়ে বেতন পেয়েই কেনেন মোবাইল”

Admin Cadre রেজোয়ান: “কখনো মোবাইল ব্যবহার করেননি, ক্যডার হয়ে বেতন পেয়েই কেনেন মোবাইল”

রেজওয়ান ইফতেকার।

তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ময়মনসিংহের আনন্দমোহন কলেজ থেকে অনার্স-মাস্টার্স সম্পন্ন করেন। তবে বিসিএসের জন্য কখনো প্রাইভেট বা কোচিং করেননি। মোবাইলও ব্যবহার করেননি। নিজে পড়াশোনা করে এবার ৩৬তম বিসিএসে রেকর্ড গড়লেন রেজওয়ান।

শিক্ষিকা মায়ের এই মেধাবী সন্তান বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করলেও তিনি তার স্বপ্ন পূরণ করেছেন।

জানা গেছে, রেজওয়ান ইফতেকারের বাড়ি ময়মনসিংহের নান্দাইল পৌরসভার চন্ডিপাশা নতুন বাজার এলাকায়। তিনি ব্যবসায়ী পিতা ইফতেকার হোসেন বাবুল ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক কুলসুম ইফতেকারের বড় সন্তান। .

ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন দেখতেন ডাক্তার হওয়ার। কিন্তু এক জেদের কারণে সেই গোলটাই বদলে যায়। তিনি বিসিএস ক্যাডার হওয়ার স্বপ্ন দেখতে থাকেন। সেই স্বপ্ন অবশেষে পূরণ হলো।

ছোটবেলা থেকেই তিনি মেধাবী ছিলেন। তিনি স্থানীয় স্কুল থেকে ৫ম ও ৮ম শ্রেণীতে মেধাবৃত্তি পেয়েছিলেন। তিনি ২০০৬ সালে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়ে মাধ্যমিক পাস করেন। এরপর ২০০৯ সালে এইচএসসিতে ৪.৮০ পেয়ে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন রেজওয়ান।

আনন্দমোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে সর্বশেষ 3.08 অনার্স 2014 এবং 3.13 মাস্টার্সে।

রেজওয়ান বলেন, তিনি কখনো মোবাইল ফোন ব্যবহার করেননি। নিজের প্রয়োজনে বন্ধুদের মোবাইল ব্যবহার করতেন কিছুদিন। অনার্স-মাস্টার্স নিজে থেকেই শেষ। সব ক্ষেত্রেই সফল।

অনার্স-মাস্টার্স শেষ করে বসে থাকেননি। প্রাইমারি স্কুল ইন্টারভিউ দিয়ে চাকরি পান। স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে চাকরিতে যোগ দেন এবং মে মাসে বেতন পান এবং জীবনে প্রথমবারের মতো মোবাইল ফোন নেন।
এবার মেধাবী রেজওয়ানের ভাগ্য বদলে গেছে। শীঘ্রই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে যোগদান করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *